পেয়াজের দাম বাড়া নিয়ে বিপদে পড়তে পারেন মোদি সরকার

Apr 25, 2016 10:34 am

 

ভারতের রাজনৈতিক ইতিহাসে পেঁয়াজ নামক আপাত নিরিহ সবজিটির গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। পেঁয়াজের ঝাঁঝেই টালমাটাল হয়ে গিয়েছিল অটল বিহারী বাজপেয়ী সরকার। বর্তমানে বিজেপি সরকার। ফের পেঁয়াজের দাম বাড়ার ভ্রুকুটি। ভারতে ফের বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। পাইকারি বাজারের থেকে প্রায় ২ থেকে ৩ গুণ বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে খুচরো বাজারে। ভারতে পেয়াজের দাম বাড়লে এর প্রভাব পড়তে পারে বাংলাদেশেও। সামনে আবার রমজান মাস।

গত কয়েক মাস ধরেই দিল্লি বিভিন্ন শহরে পেঁয়াজের দাম ঊর্দ্ধমুখী। রাজধানী দিল্লিতে যেখানে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম ৬ থেকে ১০ টাকা কিলো। সেখানে খুচরো বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ২০ থেকে ২৫ টাকা কিলো দরে। এই দাম আরও বাড়বে বলেই আশঙ্কা করছেন ব্যবসায়ীরা। পাইকারি বিক্রেতারা বলছেন, মহারাষ্ট্র, রাজস্থান ও গুজরাট থেকে পেঁয়াজের আমদানি ভালোই হচ্ছে। কিন্তু খুচরো বাজারে গিয়েই দাম বেড়ে যাচ্ছে কেন, তা বোঝা যাচ্ছে না।

কয়েকজন খুচরো ব্যবসায়ীর দাবি, প্রচুর সবজি ব্যবসায়ীর কোনও সরকারি লাইসেন্স নেই। বেআইনি ভাবে তারা ব্যবসা করছে। তাদেরই জন্য পাইকারি ও খুচরো বাজারের মধ্যে দামে এত পার্থক্য হয়ে যাচ্ছে।

১৯৯৮ সালে কেন্দ্রে বাজপেয়ী সরকারের জনপ্রিয়তা তলানিতে করে দিয়েছিল পেঁয়াজ। সেবার পেঁয়াজের দাম কোথাও কোথাও ১০০ টাকা কিলো উঠেছিল। ঘরে-বাইরে ব্যাপক চাপের মুখে পড়েছিল তত্‍‌কালীন এনডিএ সরকার। যার নির্যাস, ৯৮-এ সরকার পড়ে যাওয়া। এ সময় বাংলাদেশের শেখ হাসিনার সরকারও পেয়াজ নিয়ে বেশ বেকায়দায় পড়েছিলেন।


 

[X]